Digital Logic Design

Introduction of Digital Logic Design

Author:Shakik Mahmud


ডিজিটাল লজিক ডিজাইন নামটি শুনলেই মোটামুটি টপিকটি সম্পর্কে একটি আবছা ধারনা আমাদের মাথায় চলে আসে তা হলো ডিজিটাল মানে জিরো আর ওয়ান এবং এর লজিক নিয়ে কোন কিছু একটা ডিজাইন। বিষয়টি বলতে গেলে ঠিক অমনেই কিন্তু বিস্তর জানার জন্য খুটিনাটি অনেক কিছুই আমাদের বুঝতে ও জানতে হবে। তো এখন আমরা জানবো Digital Logic আসলে কি এবং এটি কেন প্রয়োজনীয়।




একটি electronic dvice বা একটি কম্পিউটার তার ডেটা গুলোকে স্টোর করে ডিজিট(সংখ্যা) হিসেবে। এই ডিজিট গুলোকে নিয়েই ডিভাইসটি কাজ করে কিন্তু এটি কাজ করে বিচ্ছিন্ন ভাবে মানে আমরা এই লিখাটি পড়ার সময় এটিকে অক্ষর হিসেবে দেখছি এবং আমরা বর্ন অক্ষর সম্পর্কে পরিচিত কিন্তু আপনার ডিভাইসটি কি অক্ষর কিংবা বর্ন সম্পর্কে পরিচিত? মোটেও না। তাহলে কিভাবে ডিভাইসটি প্রদর্শন করছে? এটি কাজ করছে তার ডিজিটের ভিত্তিতেই প্রতিটি অক্ষরের বিপরীতে ডিভাইসটি কিছু ডিজিট নিয়ে নিচ্ছে এবং তা স্টোর করছে তার মেমরিতে বিভিন্ন লোকেশনে আবার প্রদর্শন করার সময় আবার সেটিকে অক্ষরে রূপান্তর করে প্রদর্শন করছে। ডিজিটাল কম্পিউটার গুলো সাধারণত বাইনারী ডিজিটের ভিত্তিতে কাজ করে। এক কথায় বলতে গেলে ডিজিটাল ডিভাইসের সকল কাজই হয় এই ডিজিট দ্বারা।

 

Digital Logic Design হলো ইলেক্ট্রনিক্স সিস্টেমের বেসিস এবং বলতে গেলে কম্পিউটার, ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং এর অন্যতম ভিত্তি। একজন ডিজিটাল লজিক ডিজাইনার বিভিন্ন জটিল ইলেকট্রিক ডিভাইস বানাতে সক্ষম হয় যেটি একই সাথে ইলেক্ট্রিক্যাল এবং কম্পিউটিশনাল ক্যারেক্টার বহন করতে পারে। Digital Logic Design ব্যবহার করা হয়  hardwere develop করতে বিশেষ করে বিভিন্ন circuit boards তাছাড়াও  microchip, processor এ ব্যবহার করা হয়। এখন প্রশ্ন হলো এই hardwere গুলো কোথায় লাগে এবং কেন লাগে, আসলে এই hardwere গুলো ইউজারের দেওয়া ইনপুট ডেটা গুলো প্রসেস করতে সিস্টেম প্রোটোকল মেইনটেইন করতে এবং কম্পিটারের বা ডিভাইসের অন্যান্য ডেটা গুলো অপারেট করতে কাজে লাগে তাছাড় বিভিন্ন হাই টেক প্রযুক্তিতে কিংবা আমাদের স্মার্ট ফোন বা সেল ফোন গুলিতে ব্যবহার হয়।

          

5 thoughts on “Digital Logic Design”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *