Data Communication

Data Communication

Author: Khandakar Jahidul Islam
           ডাটা কমিউনিকেশন এর মুল উদ্দেশ্য হল এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় তথ্য আনানেওয়া করা। The main purpose of data communication system is to exchange data between two entities. এখানে two entities বলতে এক ল্যাপটপ থেকে আরেক ল্যাপটপে Data Transfer দিয়ে বুঝানো যায়। এখানে ২ টি ল্যাপটপ হল ২ টা entity । একই ভাবে internet browsing ও হলো ডাটা কমিউনিকেশনের আরেকটি উদাহরণ।

Network : ডাটা কমিনিকেশন টেকনোলজি ব্যবহার করেই নেটওয়ার্ক গড়ে উঠেছে। এই যে internet এর মাদ্ধমে এত এত device পরস্পরের সাথে যুক্ত, এটা মুলত
ডাটা কমিউনিকেশন টেকনোলোজির অবদান । যখন আমরা ডাটা বা তথ্য আদান প্রদান করি তখন তা ২ ধরণের হয়ে থাকে। একটা হল, local sharing আর অন্যটা হল remote sharing. Local sharing বলতে মুলত মুখোমুখি কথা বলা কে বোঝানো হয়। আর remote sharing বলতে একটু দূরত্বে থেকে তথ্য আনা নেওয়া কে বোঝানো হয়। আমাদের এখন সব আলোচনা হবে remote sharing নিয়ে।

Remote Sharing: যখন এক জন লোক আরেক জন লোক থেকে এমন এক দুরত্বে অবস্থান করে যে তার পক্ষে জোরে জোরে কথা বলে বা আকার ইঙ্গিত দিয়ে কোনো তথ্য আনা নেওয়া করা যায়না , তখন আমাদের দরকার পরে রিমোট শেয়ারিং এর। এই শেয়ারিং এ যখন ২ টি ডিভাইস বা যন্ত্র ব্যবহার করে তথ্য আনা নেওয়া করা হয় তখন
তাকে বলা হয় Telecommunication . এখন আমরা remote sharing বলতে telecommunication কেই বুঝি। এখন প্রধান বিষয় যে ডাটা , তাকে নিয়ে কিছু বলা যাক।

Data: ডাটা বা তথ্য বলতে আগে একটা সময় শুধু লিখিত কোনো কিছু বুঝানো হলেও বর্তমানে এর পরিসর ব্যাপক। বর্তমানে text, number, audio , video সব কিছুই ডাটার অন্তরগত । অর্থাৎ , কোনো ডিভাইস ব্যবহার করে যা কিছু আদান প্রদান করা যায় তা সব ই ডাটা।

এই সব ডাটা আদান প্রদানের জন্য প্রয়োজন হল একটি মাদ্ধম, যাকে বলা হয় Transmission Medium.
         

 

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *